Free Porn
Monday, May 27, 2024

এস.এস.সি’র ফলাফলে নতুন ইতিহাস গড়ল ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাতক্ষীরা নবারুণ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়

Must read

 

নিজস্ব প্রতিনিধি : খুলনা বিভাগের সকল বে-সরকারি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়গুলোর সেরাদের মধ্যে সাতক্ষীরার ঐতিহ্যবাহী নবারুণ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় এস.এস.সি ২০২৪ এ শতভাগ কৃতকার্য হয়ে বিগত ৫৫ বছরের ইতিহাস ভেঙ্গে নতুন ইতিহাস গড়ে অভাবনীয় সেরা সাফল্য অর্জন করায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ব্যাণার-ফেস্টুন ও বাদ্য সহকারে বিশাল আনন্দ র‌্যালী করেছে সাতক্ষীরা নবারুণ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়। আজ ১৩ মে ২০২৪ রোজ সোমবার সকাল ১০টায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে কোরআন তেলওয়াত ও দোয়া অনুষ্ঠান শেষে বিদ্যালয়ের সফলতার নায়ক গর্বিত প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল মালেক গাজী’র সভাপতিত্বে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়। র‌্যালীটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বিদ্যালয় চত্বরে গিয়ে আনন্দ উৎসবে মেতে ওঠে শিক্ষার্থীরা এবং শুরু হয় মিষ্টি বিতরণ করা হয়। সকাল হতেই বিদ্যালয়ের এস.এস.সি সকল কৃতকার্য শিক্ষার্থীরা মিষ্টি নিয়ে একে একে ভিড় জমায় প্রধান শিক্ষকের অফিস রুমে। বয়ে যায় মিষ্টির বন্যা। সফলতা অর্জনের পিছনে কার বেশি অবদান এবিষয়ে নবারুণ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় এস.এস.সি ২০২৪ এ কৃতকার্য শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা জানান, অভাবনীয় সাফল্য অর্জনে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল মালেক গাজীর অবদান সবচেয়ে বেশী। প্রধান শিক্ষক হিসাবে যোগদানের পূর্বে গত ১৪ বছরে এ প্লাস পেয়েছিল ২১ জন শিক্ষার্থী। তিনি ০৯/০৬/২০১৪ সালে এ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসাবে যোগদানের পর এসএসসিতে ১ বছরে এ প্লাস পেয়েছে ৫৪ জন। বিগত ধারা অনুযায়ী সময় লাগতো ৩৬ বছর। প্রধান শিক্ষক আব্দুল মালেক গাজী যোগদানের পর পূর্বের সকল খারাপ অবস্থার পরিবর্তন ঘটাতে এবং শিক্ষার পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে ম্যানেজিং কমিটি, শিক্ষক ও অভিভাবকদের সাথে বারবার আলোচনায় বসে অভিযোগ ও সমস্যার সমাধান করে এই সফলতা অর্জনে ভূমিকা রেখে বিদ্যালয়টিকে সাফল্যের উচ্চতর সিঁড়িতে পৌছে দিয়েছেন। ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি রোটারীয়ান নাজনীন আরা নাজুর পরামর্শে বিদ্যালয়টিকে মনোরম পরিবেশ ও শিক্ষা বান্ধব বিদ্যালয়ে পরিনত করেছেন। খেলা-ধূলা, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতাসহ সকল ক্ষেত্রে সেরা পুরস্কার লাভ করে আসছে। এই দিয়ে পরপর ৯ বার সফলতার ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি। অভিভাবকরা আরো জানান, এই বিদ্যালয়ের গুটি কয়েক শিক্ষকের স্কুল বিরোধী চক্রান্তে বিদ্যালয়ের সফলতা বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। প্রশাসনের হস্তক্ষেপে যদি ঐ চক্রান্তকারীদের চত্রান্ত বন্ধ করা যেত তাহলে এই প্রধান শিক্ষকের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় সাতক্ষীরার ঐতিহ্যবাহী নবারুণ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় দেশের সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে পারতো বলে জানান তারা।
আনন্দ র‌্যালী চলাকালে সড়কে সাতক্ষীরা-২আসনের সংসদ সদস্য মো. আশরাফুজ্জামান আশু হাত নেড়ে র‌্যালীকে স্বাগত জানান এবং ঐতিহ্যবাহী নবারুণ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি রোটারীয়ান নাজনীন আরা নাজু ভার্চুয়ালী যুক্ত হয়ে আনন্দ র‌্যালীতে স্বাগত জানিয়েছেন।
বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালীতে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মো. ওবায়দুল্লাহ, মো. সিদ্দিকুর রহমান, সালেহা আক্তার সুমি, নন্দিতা রানী, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য রিজিয়া খাতুন, দাতা সদস্য মো. আতিয়ার রহমান, শিক্ষক প্রতিনিধি মো. তৈবুর রহমান, এ এইচ এম শামীম পারভেজ, নাজমুল লায়লা বিথী, বিদ্যোৎসাহী সদস্য মো. মনজুরুল হক, পিটিএ সভাপতি জিএম ওয়াহিদ পারভেজ, বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক মো. সেলিমুল ইসলাম, আবুবক্কার সিদ্দিক, মাওলানা মো. আক্তারুজ্জামান, কবির আহমেদ, শিক্ষক এম এম নওরোজ, শামীম পারভেজ, দেবব্রত মন্ডল, মো. সিরাজুল ইসলাম, শাহিনা পারভীন, রোজিনা বুলি, রাবেয়া খাতুন, লিপিকা মন্ডল, নাজমা সুলতানা, আমিনা খাতুন, সাদিয়া আফরিন প্রমুখ। এসময় বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য, শিক্ষক, বতমান ও সাবেক শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

More articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest article